134 বার প্রদর্শিত
"এসইও" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন (142 পয়েন্ট)  
বন্ধ করেছেন
এই চিরকূট সহকারে বন্ধ করা হয়েছে : উত্তরের প্রয়োজন নেই।

1 উত্তর

1 টি পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
উত্তর প্রদান করেছেন (1,396 পয়েন্ট)  

Off Page Optimization কি?

সাইটের বাইরে যে অপটিমাইজ করা হয় তা হচ্ছে Off Page Optimization।

হয়তো আপনার মনে প্রশ্ন জাগতে পারে, সাইটের বাইরের Optimize বা SEO আবার কি?

এটি হচ্ছে বিভিন্ন সোস্যাল সাইটে পোষ্টে আপনার সাইটের লিংক দেওয়া, অন্য সাইটে বা ব্লগে পোষ্ট করে পোষ্টের নিচে বা কমেন্টে আপনার সাইটের লিংক দেওয়া…. ইত্যাদি থেকে আপনার সাইটে ভিজিটর পাওয়াই হচ্ছে Off Page Optimization।

নিচের উদাহরণটি ফলো করুন.…

মনে করেন, আপনার ফেইসবুক, গুগল+ কিংবা টুইটার অ্যাকাউন্ট আছে। এখন, আপনি যদি সেই social সাইটগুলোতে পোষ্টের মাধ্যমে আপনার সাইট সেয়ার করেন, তাহলে অবশ্যই সাইটে ভিজিটর পাবেন।

যেমন- ধরুন, আপনার ফেসবুক গ্রুপ বা ফ্যান পেজ আছে। এখন, আপনি যদি গ্রুপ বা ফ্যান পেজে আপনার সাইটের একটি পোষ্টের কিছু অংশ দিয়ে লিখলেন- “বিস্তারিত জানতে এই লিংকে যান “, তখন অনেকেই পোষ্টি পড়ার জন্য আপনার দেয়া ঐ লিংকে ভিজিট করবে। এতে আপনি ভিজিটর পাবেন।

আপনি পেজ বা গ্রুপ থেকে যে ভিজিটর পাচ্ছেন তা কিন্তু কোন সার্চ ইঞ্জিন দিচ্ছে না। বরং আপনি নিজে পোষ্ট সেয়ারের (ব্যাকলিংকের) মাধ্যমে যে ভিজিটর পাচ্ছেন সেটাই হচ্ছে অফ পেজ অপটিমাইজেশন।

অপ পেজ অপটিমাইজেশন করার জন্য আপনাকে নিম্নরূপ কাজগুলো করতে হবে–

1. Web 2.0 

2. link building বা Backlinks

3 Directory Submission

4. Social Media সাইটে লিঙ্ক শেয়ার করা

5. Email Marketing

6. Video Marketing

7. Forum Posting

8. Document Sharing

9. RSS Feed Submission

10. Press Release

11. Guest Posting

12. Article Submission

13. Blog comments

এছাড়াও আরো অনেক কাজ আছে যা আমরা কাজের প্রয়োজনে পরবর্তিতে শেয়ার করব।

1. Web 2.0 :

Web 2.0 সম্পর্কে জানতে এই লিংকে ক্লিক করুন।

2. link building বা Backlinks:

link building বা Backlinks সম্পর্কে জানতে এই লিংকে ক্লিক করুন।

3. Directory submission :

অনেকে মনে করে, এখন Directory submission দিয়ে আগের মতো হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক পাওয়া সম্ভব নয়। কিন্তু আপনি যদি ভালোভাবে Directory submission করেন, তাহলে অবশ্যই হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক পাবেন। মনে রাখবেন, Directory submission করার পুর্বে অবশ্যই চেক করে নিবেন যেন ডিরেক্টরি হাই পেজ র্যাঙ্ক, এলেক্সা র্যাঙ্ক, ডোমেইন অথরিটি এবং পেজ অথরিটির হয়।

4. Social Media সাইটে লিংক শেয়ার করা :

বিভিন্ন Social Media সাইটে আপনার সাইট লিংক শেয়ার করে, আপনার সাইটে/ব্লগে যে রেফারাল ভিজিটর পান তা হচ্ছে Social Media Sharing। এটি রেফারেল ভিজিটর না, বরং সার্চ ইঞ্জিনে আপনার সাইট/ব্লগের র্যাঙ্কিং বাড়াতে অনেক ভুমিকা পালন করে। তাছাড়া Social Media সাইটের মাধ্যমে হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংকও পাওয়া সম্ভব। আমরা সোশ্যাল মিডিয়া বলতে FacebookTwitter,LinkedinGoogle+ …..ইত্যাদি কে বুঝি। এগুলো ছাড়াও কিন্তু অনেক সোশ্যাল মিডিয়া সাইট আছে। যেগুলো থেকে আপনি সহজেই ব্যাকলিংক বাড়াতে পারেন।

5. Email Marketing :

ইমেইল মার্কেটিংয়ের জন্য আপনাকে ডেস্কটপবেস ইমেইল সার্ভার অথবা অনলাইন ইমেইল সার্ভার ব্যবহার করতে হবে। তবে সবচেয়ে সুবিধাজনক পদ্ধতি হল অনলাইন ইমেইল সার্ভার ব্যবহার করা। কারণ ডেস্কটপবেইস ইমেইল সার্ভার তৈরির জন্য আপনার একটা ভালো কনফিগারের পার্সোনাল কম্পিউটার ও খুব ভাল স্পীডের ইন্টারনেট কানেকশন থাকতে হবে । আর সাথে থাকতে হবে, একটি ইমেইল সেন্ডিং সফটওয়্যার। আর এগুলো কিনতে হলে গুনতে হবে মোটা অংকের টাকা। এছাড়াও ডেস্কটপবেস ইমেইল সার্ভার ব্যাবহারের ফলে আইপি ব্ল্যাক লিস্ট হওয়া এবং মেইল স্প্যামে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। সেই সাথে সার্ভার ক্রাশ হওয়ার ঝুঁকি তো আছেই। পক্ষান্তরে অনলাইন ইমেইল সার্ভারের খরচ তুলনামুলক অনেক কম এবং ব্যাবহারও অনেক সহজ ও নিরাপদ।

বাংলাদেশের ইমেইল মার্কেটারদের কথা চিন্তা করে অল্প খরচে ইমেইল মার্কেটিং সফটওয়্যার ও অনলাইন ইমেইল সার্ভার দিচ্ছে Email Bangladesh যেখানে আপনি পাচ্ছেন ফুল কন্ট্রোল প্যানেল, ফ্রী ইমেইল টেমপ্লেট, ইমেইল আপলোড করা, ইমেইল ক্যাম্পেইন তৈরি করা, অ্যাকটিভিটি চেক করা সহ আর আকর্ষণীয় সব ফিচার।

6. Video Marketing :

হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক করার জন্য বর্তমান সময়ে জনপ্রিয় আরেকটি পদ্ধতি হচ্ছে Video Marketing। আপনার ব্লগ/সাইটের বিষয়বস্তুর উপর নির্ভর করে, কয়েকটি ভিডিও টিওটোরিয়াল তৈরী করবেন। তারপর সেগুলা জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং সাইটে (যেমন- YoutubeDailymotionMetacafeVimeoVeoh.…ইত্যাদি) পাবলিশ করুন, এতা করে সেখান থেকে আপনার সাইটের জন্য প্রচুর ব্যাকলিংক পাবেন।

7. Forum Posting :

ব্যাকলিংক তৈরী করার সবচেয়ে পুরানো ও জনপ্রিয় মাধ্যম হচ্ছে Forum Posting। অনেকে মনে করে ফোরামের ব্যাকলিংক নাকি SEO -তে কাজে আসে না। আপনি সঠিভাবে ফোরাম পোষ্ট করতে পারলে, ফোরামের ব্যাকলিংক হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক হিসেবে কাজ করবে।
ফোরাম পোষ্টিং এ ব্যাকলিংক পেতে হলে, আপনাকে প্রচুর পরিশ্রম করতে হবে। আর মনে রাখবেন, সকল ফোরামে সবসময় পোস্ট নেয় না।

8. Document Sharing :

আপনার ব্লগ/সাইটের নিশ রিলেটেড কিছু ebook, pdf file এবং Presentation তৈরী করে সেইগুলা বিভিন্ন হাই পেজ র্যাঙ্ক, এলেক্সা র্যাঙ্ক ও ডোমেইন অথরিটির ডকুমেন্টস শেয়ারিং সাইটে প্রকাশ করতে পারেন। ডকুমেন্টস গুলো তৈরী করার সময় ডকুমেন্টের ভিতরে আপনার সাইটের লিংক দিয়ে দিন। তাহলে সহজেই হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক পাবেন।

9. RSS Feed Submission :

ডিরেক্টরি সাইটের মতো অনেক ধরনের সাইট আছে, যেখানে আপনি আপনার ব্লগের RSS Feed এর লিংক পাবলিশ করতে পারেন। ফলে যখন আপনার ব্লগে নতুন পোষ্ট পাবলিশ করবেন, তখন অটোমেটিকভাবে পোষ্টের লিংকগুলো ঐ RSS Feed ডিরেক্টরিতে চলে যাবে এবং আপনি কোয়ালিটি ব্যাকলিংক পেয়ে যাবেন।

10. Press Release Submission :

এটিও একটি পুরানো পদ্ধতি, যা হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক পাওয়ার জন্য গুরুত্বপুর্ণ ভুমিকা পালন করে। এজন্য আপনাকে হাই পেজ র্যাঙ্ক এবং ডোমেইন অথরিটি Press Release সাইট খুঁজতে হবে। এরপর সেই সাইটগুলোতে আপনার ব্লগ/সাইট সম্পর্কে Unique Press Release সাবমিট করতে হবে। যেন তা খুব সহজভাবে প্রকাশ হয়।

11. Guest Posting :

অনেক ক্ষেত্রে গেষ্ট পোষ্টিং, আর্টিকেল সাবমিশন থেকে অনেক কঠিন। যদি আপনি ভালো মানের কন্টেন্ট লিখতে না পারেন এবং অন্য ব্লগারদের সাথে ভালো কমিউনিকেশন না থাকে, তাহলে আপনি ভালো মানের সাইট/ব্লগে Guest Posting করে হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক পাবেন না। সুতরাং, গেষ্ট পোষ্টিং করতে হলে, অবশ্যই আপনাকে ভালো কন্টেন্ট রাইটার হতে হবে এবং ব্লগারদের সাথে কমিউনিকেশন রাখতে হবে। গুগলে সার্চ করে আপনার সাইটের নিশ রিলেটেড ব্লগ/সাইট খুঁজে বের করুন, যেখানে সহজে Guest Post পাবলিশ হয়।

12. Article Submission :

প্রচুর হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক এর জন্য অন্যতম গুরুত্বপূর্ন মাধ্যম হলো Article Submission। আপনি যদি এসইও তে একবারে নতুন হয়ে থাকেন, সেক্ষেত্রে এটি হয়তো আপনার জন্য কিছুটা কষ্ট হতে পারে। কারন- Article Submission এর জন্য ভালো মানের কন্টেন্ট রাইটার হতে হয়। এছাড়া এটি কিছুটা ধৈর্য্যশীল আর সময়ের প্রয়োজন হয়।

13. Blog Comments করা :

হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক এর সবচেয়ে বড় প্রধান উৎস হচ্ছে ব্লগ বা সাইটে কমেন্ট করা। আপনি সহজভাবে আপনার ব্লগ/সাইটের নিশ অনুযায়ী ব্লগ/সাইট খুঁজে বের করে, সেই ব্লগ/সাইটে কমেন্টের মাধ্যমে হাই কোয়ালিটি ব্যাকলিংক পেতে পারেন। যদি আপনি অন্য ব্লগ/সাইটে আপনার সাইটের লিংক কমেন্ট করেন, তাহলে সেখান থেকে প্রচুর রেফারেল ভিজিটর পেতে পারেন।

Md. Mizan প্রশ্ন ডট কম এর প্রতিষ্ঠাতা। মানুষের সমস্যা সমাধানের উদ্দেশ্যেকে লক্ষ্য করেই ২০১৭ সালে প্রশ্ন অ্যানসারস প্রতিষ্ঠা করেন। বর্তমানে তিনি একজন ডিপ্লোমা কম্পিউটার ইন ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে অধ্যয়নরত আছেন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
25 ডিসেম্বর 2017 "এসইও" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md Mizan (142 পয়েন্ট)  
1 উত্তর
25 ডিসেম্বর 2017 "এসইও" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md Mizan (142 পয়েন্ট)  
1 উত্তর
25 ডিসেম্বর 2017 "এসইও" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md Mizan (142 পয়েন্ট)  
1 উত্তর
24 ডিসেম্বর 2017 "এসইও" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md Mizan (142 পয়েন্ট)  

20,349 টি প্রশ্ন

19,174 টি উত্তর

2,657 টি মন্তব্য

1,170 জন সদস্য



প্রশ্ন অ্যানসারস এমন একটি প্ল্যাটফর্ম, যেখানে কমিউনিটির এই প্ল্যাটফর্মের সদস্যের মাধ্যমে আপনার প্রশ্নের উত্তর বা সমস্যার সমাধান পেতে পারেন এবং আপনি অন্য জনের প্রশ্নের উত্তর বা সমস্যার সমাধান দিতে পারবেন। মূলত এটি বাংলা ভাষাভাষীদের জন্য একটি প্রশ্নোত্তর ভিত্তিক কমিউনিটি। বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পাশাপাশি অনলাইনে উন্মুক্ত তথ্যভান্ডার গড়ে তোলা আমাদের লক্ষ্য।

...