33 বার প্রদর্শিত
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন (29 পয়েন্ট)  
পূনঃপ্রদর্শিত করেছেন

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (747 পয়েন্ট)  
উৎস অনুযায়ী প্রোটিনকে ২
ভাগে ভাগ করা যায়। যথা:
প্রাণিজ প্রোটিন: যে
প্রোটিনগুলো প্রাণিজগৎ
থেকে পাওয়া যায় তাদেরকে
প্রাণিজ প্রোটিন বলে।
যেমন: মাছ, মাংস, ডিম, দুধ
ইত্যাদি। এই প্রোটিনকে
প্রথম শ্রেণীর প্রোটিন
বলে। উদ্ভিজ্জ প্রোটিন:
উদ্ভিদ জগৎ থেকে প্রাপ্ত
প্রোটিনকে উদ্ভিজ্জ
প্রোটিন বলে। যেমন: ডাল,
বাদাম, সয়াবিন, শিমের বিচি
ইত্যাদি। উদ্ভিজ্জ
প্রোটিনকে দ্বিতীয়
শ্রেণীর প্রোটিন বলে। ১
গ্রাম প্রোটিন থেকে চার
কিলোক্যালরি শক্তি পাওয়া
যায়। দৈনিক প্রয়োজনীয়
ক্যালরির ২০-২৫ ভাগ
প্রোটিন জাতীয় খাদ্য
থেকে গ্রহণ করা উচিত।
প্রতিদিন খাবারে উদ্ভিজ্জ
প্রোটিনের পাশাপাশি কিছু
প্রাণিজ প্রোটিনও গ্রহণ
করতে হবে। আমাদের দেহের
অস্থি, পেশি, বিভিন্ন
দেহযন্ত্র, রক্ত কণিকা
থেকে শুরু করে দাঁত, চুল, নখ
পর্যন্ত প্রোটিন দিয়ে
গঠিত। প্রোটিন শিশুদের
দৈহিক বৃদ্ধি সাধন ও দেহ গঠন
করে। আমাদের দেহের কোষগুলো
প্রতিনিয়তই
ক্ষয়প্রাপ্ত হয়। এই
ক্ষয়প্রাপ্ত স্থানে নতুন
কোষগুলো গঠন করে ক্ষয়পূরণ
করতে ও কোনো ক্ষতস্থান
সারাতে প্রোটিনের ভূমিকা
রয়েছে। যখন দেহে ফ্যাট ও
কার্বোহাইড্রেটের অভাব
দেখা যায় তখন প্রোটিন
তাপশক্তি উৎপাদনের কাজ
করে। রোগ সৃষ্টিকারী
রোগজীবাণুকে প্রতিরোধ
করার জন্য আমাদের দেহে
তাদের প্রতিরোধী পদার্থ
বা অ্যান্টিবডি তৈরী করা
প্রোটিনের একটি
গুরুত্বপূর্ণ কাজ। মানসিক
বিকাশ বা মস্তিষ্কের
বিকাশের জন্য প্রোটিন
অপরিহার্য। দেহে
প্রোটিনের অভাব হলে
বর্ধনরত বয়সের শিশুদের
স্বাভাবিক বৃদ্ধি ব্যাহত
হয়। দীর্ঘদিন ধরে খাদ্যে
প্রোটিনের ঘাটতি থাকলে
কোয়াশিয়রকর রোগ হয়।
দেহের রোগ প্রতিরোধ
ক্ষমতা ও মেধা ও বুদ্ধি কমে
যায়। তাই প্রোটিন
জাতীয় খাদ্য গ্রহণ করা
প্রয়োজন

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
15 ডিসেম্বর 2017 "অন্যান্য" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sabbir Ahmed Fahim (203 পয়েন্ট)  
0 টি উত্তর
19 এপ্রিল 2018 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন At Munna (1,653 পয়েন্ট)  
1 উত্তর
20 এপ্রিল 2018 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sajjad Jayed (8,325 পয়েন্ট)  

20,636 টি প্রশ্ন

20,152 টি উত্তর

2,831 টি মন্তব্য

1,324 জন সদস্য



প্রশ্ন অ্যানসারস এমন একটি প্ল্যাটফর্ম, যেখানে কমিউনিটির এই প্ল্যাটফর্মের সদস্যের মাধ্যমে আপনার প্রশ্নের উত্তর বা সমস্যার সমাধান পেতে পারেন এবং আপনি অন্য জনের প্রশ্নের উত্তর বা সমস্যার সমাধান দিতে পারবেন। মূলত এটি বাংলা ভাষাভাষীদের জন্য একটি প্রশ্নোত্তর ভিত্তিক কমিউনিটি। বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার পাশাপাশি অনলাইনে উন্মুক্ত তথ্যভান্ডার গড়ে তোলা আমাদের লক্ষ্য।

...